ব্যক্তিক অনুভবে বাংলার রূপ

0

ব্যক্তিগত অনুভূতি—কষ্ট, আনন্দ-বেদনাই ছবি আঁকার রসদ জোগায় রফি হককে। এ শিল্পীর সঙ্গে যখন কথা হলো, বললেন, ‘আমি ছবি দেখি না, ছবি পড়ি—কবিতা, গল্প ও উপন্যাসের মতো। আসলে প্রত্যেক শিল্পীর কাজেই নিজস্ব একটা ভ্রমণের গল্প থাকে।’
গত বছরের মার্চ থেকে মে—এই তিন মাসের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয় রফি হককে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে অতিথি বক্তা হিসেবে বক্তৃতা দেওয়ার জন্য। পাশাপাশি সেখানকার ফস্টার হলে ‘ক্রিমসন রেড’ শিরোনামে মাসব্যাপী একটি ছাপচিত্র প্রদর্শনীও হয়েছিল তাঁর। এখানে স্থান পেয়েছিল শিল্পীর বিভিন্ন সময়ের ছাপচিত্রকর্ম। এবার ঘুরে আসা যাক সে জগৎ থেকে।
এই কাজগুলো তাঁর বাস্তব অভিজ্ঞতার ভ্রমণ। ক্যানভাসে কখনো বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন, কখনো বা সমসাময়িক রাজনৈতিক পরিস্থিতি, আবার কোনো ছবিতে আছে হিরোশিমায় বোমা নিক্ষেপের প্রভাব। মোটকথা তাঁর কাজের মধ্যে আছে বিষয়বৈচিত্র্য। পাশাপাশি এ প্রদর্শনীর মাধ্যমে বিদেশের মাটিতে নিজের ব্যক্তিক অভিজ্ঞতার পাশাপাশি তিনি তুলে ধরেছেন এক টুকরো বাংলাদেশকেও।
সেই বাংলাদেশের রংটি কেমন?
গত শতকের নব্বই দশকের শেষ দিকে পেপার লিথোগ্রাফ মাধ্যমে তিনি এঁকেছিলেন ‘লিবারেশন ওয়ার ১৯৭১’ নামের একটি সিরিজ। মুক্তিযুদ্ধকে ধারণ করেও এ ছবির কোথাও কোথাও রফি বলেছেন ব্যক্তিগত কিছু কথা। আবার শিল্পীর ‘ইনার বার্ন’ সিরিজে স্পষ্ট হয়েছে ব্যক্তিগত ও সামষ্টিক বিভিন্ন যন্ত্রণা। এমনকি মানুষের অন্তর্গত যাতনাও ধরা আছে সিরিজটিতে। ২০০০ সালে করা এই সিরিজের ছবিগুলো আগুনে পোড়া কাগজে এচিংয়ের কোলাজচিত্র।
রফির প্রকাশভঙ্গি নানা রকম। তাঁর ছবিতে কখনো দেখা যায় বিভিন্ন আকৃতির রেখার সন্নিবেশ। কিন্তু এর পরের ধারায়ই আবার রেখার দেখা নেই, আছে রং ও জমিনের উৎকৃষ্ট ব্যবহার। কোনো কোনো ছবিতে আছে জ্যামিতিক ফর্ম।
শিল্পীর অতিসাম্প্রতিক সংযোজন ‘আমি বৃত্ত আঁকি’ সিরিজ। এই সিরিজের ছবিগুলোর তলে (সারফেস) আছে তঁার হাতে লেখা বাক্যের ওপর দিয়ে পাতলা রঙের প্রলেপ। প্রথম দেখায় অনুভূত হয়, এখানে যেন রয়েছে অনেক না-বলা কথা। ছবিগুলোর কোথাও আবার দেখা মেলে উজ্জ্বল রঙের আস্তর। একইভাবে তেলরঙে আঁকা তাঁর আরেকটি সিরিজ ‘রেড পেইন্টিং’-এর ছবিগুলোতেও পাওয়া যায় উজ্জ্বল রঙের ব্যবহার। ২০০৮-২০১১-এর মধ্যে করা এই কাজগুলোয় উজ্জ্বল রঙের জমিনে রয়েছে ছোট-বড় নানা রঙের আয়তক্ষেত্র। রঙের মধ্যে নেই তারল্য বা স্বচ্ছতা।
আগেই বলেছি, ব্যক্তিগত নানা অনুভূতি ও অভিজ্ঞতা রংতুলির ছোঁয়ায় ক্যানভাসে মূর্ত করেন রফি হক। শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁর প্রদর্শনীর চিত্রমালাতে, ক্যানভাসের পর ক্যানভাসে পাওয়া গেল সেই অনুভব—ব্যক্তির মননে জারিত হওয়া বাংলাদেশের রূপ।

Share.

About Author

Leave A Reply